এক ক্লিকেই হ্যাক হবে ভিকটিমের কম্পিউটার(ই-মেইল,ফেইসবুক) অনলাইন থেকেই আপনি সব নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন!

16
377

আজকের টিউনে আমি আপনাদের  দেখাবো কিভাবে আমরা যে কারো কম্পিউটার হ্যাক করে সে কম্পিউটারের সম্পুর্ন নিয়ন্ত্রন নিজের হাতে আনতে পারে।
এর জন্যে আমরা যা ব্যবহার করব সেটার নাম হচ্ছে র‍্যাট।
র‍্যাট বা রিমোট এডমিনিস্ট্রেশন টুল, যেটা ব্যবহার করা হয় রিমোটলি কম্পিউটার ব্যবহার করার জন্যে বা হ্যাক করার জন্যে। র‍্যাট সেটাপ করার জন্যে কিছু ব্যাসিক বিষয় সম্পর্কে ধারনা থাকতে হবে যা আমি এই টিউনে আলোচনা করবে।
আসুন তাহলে শুরু করা যাক।

১. কিভাবে আপনি একটি কম্পিউটার হ্যাক করবেন?

অনেকেই প্রশ্ন করেন কিভাবে ফেইসবুক আইডী,ইমেইল আইডী এইসব কিভাবে হ্যাক করা যায় অথবা এই ধরনের প্রশ্ন। তাদের জন্যে উত্তর হচ্ছে পিসি হ্যাক করুন ভিকটিমের বাকি সব অটোম্যাটিক আপনার নিয়ন্ত্রনে চলে আসবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে পিসি হ্যাক করা যায় কিভাবে?
অনেক রকমের পদ্ধতির ব্যবহার করেই পিসি হ্যাক করা যায়। এর মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একটি মেথড হচ্ছে ভিকটিমের কম্পিউটারে র‍্যাট সার্ভার এক্সিকিউট করানো। আপনি যদি ভিকটিমের কম্পিউটারে সার্ভার এক্সিকিউট করাতে পারেন। তাহলে সে কম্পিউটার এ টু জেড মানে প্রায় সব কিছুর কন্ট্রলই আপনার কাছে চলে আসবে।

২. ডিএনএস কি ? এবং র‍্যাট সেটাপের কাজে ডিএনএসের ব্যবহার ?

DNS এর সম্পুর্ন রুপ হচ্ছে Domain Name Service আমরা আমাদের র‍্যাট সেটাপের কাজে ডিএনএসের ব্যবহার করবো যাতে আমাদের র‍্যাট দীর্ঘসময় ধরে একটিভ থাকে। ডিএনএসের সাহায্যে আমরা হ্যাকেড কম্পিউটারগুলো, বা স্লেইভদের দীর্ঘ সময় ধরে নিজেদের কন্ট্রোলে রাখতে পারবো, যতদিন না ডিএনএসটি এক্সপায়ার হচ্ছে। ডিএনএস এর কাজ হচ্ছে আপনার আইপি এড্রেস এবং ভিকটিমের আইপি এড্রেসের মধ্যবর্তী সংযোগটি ঘটাতে সাহায্য করবে এবং ভিকটিমের আইপি এড্রেসের সাহায্যে ডাটা ট্রান্সফার করতে সাহায্য করবে, আর যদি আমরা ডিএনএস সার্ভার ব্যবহার না করে যদি নিজের আইপি
ব্যবহার করে র‍্যাট সার্ভার তৈরি করি তাহলে সেটা হয়তো ঠিকভাবে কাজ করবে কিন্তু সমস্যা হচ্ছে কিছুসময় পর পর আইপি এড্রেস চেঞ্জ হয়, যখনি আপনার আইপি এড্রেস চেঞ্জ হবে সাথে সাথে আপনার র‍্যাটের যে স্লেইভ বা ভিকটিমরা আছে সব চলে যাবে। তাদের পিসির কন্ট্রোল আপনি হারিয়ে ফেলবেন। এখন যদি আমরা ডিএনএসের ব্যবহার করি তাহলে যখন আমরা
ভিকটিমের কম্পিউটার থেকে কোনো ডাটা ডাউনলোড করতে চাইবো সেটা প্রথমে ডিএনএস ডোমাইন নেইম সার্ভারে আসবে এরপরে আমাদের পিসির লেটেস্ট আইপি ভেরিফাই করবে, ভেরিফাই শেষে ছবি বা আপনি ভিকটিমের কম্পিউটার থেকে যে ডাটা দেখতে চেয়েছেন সেটা দেখতে পাবেন।
কিভাবে আপনি ডিএনএস সার্ভিস পাবেন?
আপনি http://www.noip.com ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফ্রিতেই ডিএনএস সার্ভিস পেতে পারেন।

পোর্ট ফরোয়ার্ডিং কি ? এবং র‍্যাটের ব্যবহার

পোর্ট হচ্ছে একটি প্রটোকল যেটা এক আইপি এড্রেস থেকে আরেকটি আইপি এড্রেসে ডাটা ট্রান্সফার
করার জন্যে ব্যবহার করা হয়। দুই ধরনের পোর্ট হয়ে থাকে

  • TCP
    UDP

TCP এবং UDP হচ্ছে দুই ধরনের পোর্ট যেটাকে র‍্যাট সেটাপের মুল বিষয় বলতে পারেন।
সফলভাবে র‍্যাট সার্ভার সেটাপ করার জন্যে আমাদের এই ধরনের পোর্টকেই ফরওয়ার্ড করতে হবে একই নাম্বারের পোর্ট ওপেন করতে হবে আমাদের কম্পিউটারে এবং রাউটারে। আপনি যদি রাউটার ব্যবহারকারী হউন তাহলে আপনার রাউটারের মডেল লেখে গুগলে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন কিভাবে পোর্ট ফরওয়ার্ড করতে হয় সেটার টিউটরিয়াল।যদি আপনি পোর্ট ফরওয়ার্ড করতে না পারেন তাহলে কি করবেন ? যদি আপনি পোর্ট ফরওয়ার্ড না করতে পারেন আপনার কাছে রাউটার না থাকার কারণে বা অন্য যেকোনো কারণে তাহলে আজকে আমি এমন একটি পদ্ধতি দেখাবো আপনাদের পোর্ট ফরওয়ার্ডের
যেটা দিয়ে রাউটার ছাড়াই পোর্ট ফরওয়ার্ড করে আপনারা র‍্যাট সেটাপ করতে পারবেন।

UNPN কি ? এবং এটার বিশেষ ব্যবহার র‍্যাট ব্যবহারের ক্ষেত্রে

UNPN এর সম্পুর্নরুপ হচ্ছে Universal Plug And Play এটা হচ্ছে কিছু নেটওয়ার্কিং প্রটোকলসের সম্মিলিত ব্যবহার যা নেটওয়ার্ক ডিভাইস কে ডাটা আদান প্রদানের অনুমতি দান করে, যেকোনো পোর্ট নাম্বারের মাধ্যমে যে পোর্ট নাম্বারটি UNPN এর দ্বারা ব্যবহার করা হয়। অনেকেরই র‍্যাট সেটাপের সময় পোর্ট ফরওয়ার্ড করতে সমস্যা হয় তাই আমি আজকে এই মেথডটি
দেখাবো।

এখন আমরা সেটাপের কাজ শুরু করবো। প্রথমেই ডার্ক কমেট ডাউনলোড করে নিতে হবে যেহুতু এটি একটি হ্যাকিং এপ্লিকেশন তাই আমি এর ডিরেক্ট ডাউনলোড লিঙ্ক শেয়ার করছি না এখানে, গুগলে সার্চ করলেই ডাউনলোড লিঙ্ক পেয়ে যাবেন আশা করি। না পেলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন ফেইসবুকে আমি দিয়ে দিবো।
শুরু করার জন্যে আমাদের আরেকটি জিনিসের প্রয়োজন সেটা হচ্ছে No-IP Client (No-Ip) এটা আমাদের আইপিকে প্রয়োজনমতো আপডেট করবে।

NO-IP Setup

http://www.noip.com ওয়েবসাইটে যান এবং সাইনআপ করুন। ফর্মটি এইভাবে পূর্ণ করুন আপনার তথ্য দিয়ে মেইল আইডি দিয়ে এবং ফ্রি ডিএনএস সিলেক্ট করুন

এবার পোর্ট ফরোয়ার্ডিং এর পালা।

UNPN (রাউটার ছাড়াই পোর্ট ফরোয়ার্ড করুন) এর জন্যে আপনাদের পিসিতে ইউটরেন্ট ডাউনলোড থাকা লাগবে, ইউটরেন্ট ডাউনলোড করতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন
এবার ডার্ক কমেট র‍্যাট সফটওয়্যারে ওপেন করুন এবং সকেটে ক্লিক করুন

এবার রাইট ক্লিক করুন সকেট অপশনে সেখানে লিশেন পোর্ট নামে একটি অপশন পাবেন যার পাশে খালি বক্স থাকবে সেখানে 1122 এই পোর্ট নাম্বারটি লিখে দিবেন, এবং তার নিচে ট্রাই টু ফরোয়ার্ড অটোম্যাটিক্যালি লেখাটিতে টিক মার্ক দিয়ে দিবেন এবং লিসেন বাটনেক্লিক করবেন। এখন ডার্ক কমেট যেভাবে আছে সেভাবেই রেখে দিন। এবার ইউটরেন্ট ওপেন করুন এবং অপশনে ক্লিক করুন তারপরে প্রেফেরেন্সেস অপশনে যান। এবার পোর্ট লেখার জন্যে একটি বক্স পাবেন সেখানে ১১২২ পোর্ট নাম্বারটি লেখুন Near Random পোর্টস লেখাটির পাশে বক্সে এবং ওকে দিন।

ওকে তে ক্লিক করার পরে আপনার পোর্ট সফলভাবে ফরোয়ার্ড হয়ে যাবে, পোর্ট ফরোয়ার্ড ঠিকভাবে হলো নাকি চেক করার জন্যে এই ওয়েবসাইটে গিয়ে পোর্ট নাম্বারটি লিখে চেক করতে পারেন। র‍্যাট সার্ভার তৈরি র‍্যাট সার্ভার তৈরি করার জন্যে ডার্ক কমেটের উপরে ডার্ককমেট-র‍্যাট লেখাটিতে ক্লিক করুন অপশন ওপেন করার জন্যে, এবং এরপরে সার্ভার মডিউলে ক্লিক করুন এবং এরপরে Minimalist এ ক্লিক করুন

এরপরে একটি বক্স আসবে সেখানে Stub-ID তে নো-আইপি ডটকমে রেজিস্ট্রার করা ডোমাইনের নামটি দিতে হবে এবং আইপি/ডিএনএসের জায়গায় address.no-ip.biz এড্রেসটি দিতে হবে।
পোর্ট নাম্বার দিয়ে দিতে হবে ১১২২ সার্ভারটি পিসির কোন জায়গায় সেইভ করবেন সেটা ঠিক করে দিতে হবে।
এরপরে নরমাল বাটনে ক্লিক করুন

No-Ip Dns Client Setup
নো-আইপি ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রার করলে সেখান থেকে আপনারা ক্লায়েন্ট সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
ডাউনলোড করার পরে সফটওয়্যারটি ইন্সটল করে ওপেন করুন। ওপেন করার পরে এডিট হোস্টস অপশনে ক্লিক করুন

এবার আপনার হোস্ট এড্রেসটি সিলেক্ট করে দিন চেক বক্সে টিক মার্ক দেওয়ার মাধ্যমে এবার সেইভ বাটনে ক্লিক করে সেইভ করুন

এবার রিফ্রেসে ক্লিক করুন আপনারা ৩টি সবুজ রঙের সিগন্যাল দেখতে পাবেন। একটা কথা মাথায় রাখবেন যে প্রত্যেকবার ডার্ক কমেট ওপেন করার পুর্বে এই ক্লায়েন্ট সফটওয়্যারটি ওপেন করবেন এবং আইপি এড্রেস আপডেট করে নিবেন আপডেটে ক্লিক করে।
এটা আপনার আইপি এড্রেস আপডেট করে দিবে এবং আপনার সার্ভার নতুন কেউ ইন্সটল করলে সে র‍্যাটে স্লেইভ লিস্টে এড হয়ে যাবে!আর যদি আপনি ৬০দিন পর্যন্ত এই লিস্ট আপডেট না করেন তাহলে নো-আইপি থেকে আপনার একাউন্ট অটোম্যাটিক ডিলেট হয়ে যাবে।
এখন র‍্যাট সার্ভার তৈরি করার পরে এটা ভিকটিমের কাছে সেন্ড করুন। বিশ্বাসযোগ্য করতে আকর্ষনীয় নাম দিন সার্ভারের সে অনুযায়ী আইকন ব্যবহার করুন। সে একবার ইন্সটল করলেই কাজ শেষ তার সম্পুর্ন পিসির কন্ট্রোল আপনার কাছে চলে আসবে। র‍্যাট সফটওয়্যার ব্যবহার একদম সহজ।
এই টিউনে যদি মোটামোটি ভালো সাড়া পাই তাহলে কিভাবে আকর্ষনীয় ভাবে র‍্যাট ফাইল সাজাতে হয় সেটা দেখাবো। যাতে ভিকটিম সহজেই ফাইলতি ডাউনলোড করে ইন্সটল করে।
এখন খারাপ খবর হচ্ছে ডার্ক কমেট দিয়ে বানানো সার্ভার প্রায় বেশির ভাগ এন্টিভাইরাসের কাছেই ডিটেক্ট হয়।
তাই র‍্যাট সার্ভারটি এনক্রিপ্ট করতে হবে, সেটা এই টিউনে কি ধরনের সাড়া আসছে তার ভিত্তিতে প্রকাশ করবো আশা করি।

16 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here