এইচপি কোম্পানি মেঘ হুইটম্যান অধ্যায় ইতি

0
1102

হিউলেট প্যাকার্ড এন্টারপ্রাইজের (এইচপিই) প্রধান নির্বাহীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন মেগ হুইটম্যান। গতকাল মঙ্গলবার তিনি এ ঘোষণা দেন। এর মধ্য দিয়ে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ একটি প্রতিষ্ঠানে তাঁর ছয় বছরের অধ্যায়ের ইতি ঘটতে যাচ্ছে।

কম্পিউটার সার্ভার নির্মাতা হিসেবে পরিচিত এইচপি এন্টারপ্রাইজেস। বর্তমানে ডিজিটাল কার্যক্রমে করপোরেট গ্রাহকেরা নিজস্ব যন্ত্রপাতি কেনার বদলে ক্লাউড সেবার দিকে ঝুঁকছে। এ ক্ষেত্রটিতে মানিয়ে নিতে কাজ করছে এইচপি।

যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসা খাতে প্রভাবশালী নারী হিসেবে পরিচিত হুইটম্যান। একসময় তিনি ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর পদে প্রার্থী হয়েছিলেন। এইচপির মতো বড় একটি প্রতিষ্ঠানকে ঢেলে সাজাতে বেশ কিছু পরিকল্পনা নেন তিনি। এর মধ্যে ২০১৫ সালে এইচপিকে দুটি আলাদা বিভাগে ভাগ করে ফেলার সিদ্ধান্তটি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। হিউলেট প্যাকার্ড এন্টারপ্রাইজেস ও পিসি অ্যান্ড প্রিন্টার বিজনেস এইচপি ইনকরপোরেশন নামে দুটি ভাগে পরিচালিত হচ্ছে এইচপি। সার্ভার ও নেটওয়ার্কিং খাতে ব্যবসা বাড়াতে কর্মী ছাঁটাই থেকে শুরু করে নানা পদক্ষেপ নেন তিনি।

গতকাল মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিষ্ঠানটির আয়-ব্যয়ের হিসাব–সংশ্লিষ্ট এক অনুষ্ঠানে হুইটম্যান জানান, আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে তাঁর স্থলাভিষিক্ত হবেন অ্যান্টোনিও নেরি। এইচপির কর্মকর্তা হিসেবে অনেক দিন ধরে কাজ করছেন তিনি। অবশ্য খুব বেশি পরিচিত নন। বর্তমানে এইচপি এন্টারপ্রাইজেসের প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাজ করছেন। পেশায় কম্পিউটার প্রকৌশলী।

হুইটম্যান বলেন, ‘আমরা অনেক ছোট, ক্ষিপ্র ও অনেক লক্ষ্য ধরে এগিয়ে চলা প্রতিষ্ঠান। তবে এখনই অ্যান্টনিও এবং নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বের কার্যভার বুঝে নেওয়ার উপযুক্ত সময়।’

নেরি এইচপি এন্টারপ্রাইজেসের পরিচালক বোর্ডে ঢুকে পড়বেন। তবে হুইটম্যান এখনই পরিচালনা পর্ষদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন না।
বাজার গবেষকেরা বলছেন, এইচপি এখন আগের চেয়ে অনেক ফোকাস ও চটপটে প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। প্রযুক্তি খাতের একজন নতুন প্রধান নির্বাহী যুক্ত হওয়াতে এই উদ্ভাবনী যুগে আরও উন্নতি করতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।

হুইটম্যান এর আগে ইবে ইনকরপোরেশনের মতো প্রতিষ্ঠানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। সম্প্রতি উবার টেকনোলজিসের প্রধান নির্বাহী পদের জন্য অনুরোধ পেয়েছিলেন তিনি। সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলে দারা খোশরোশাহিকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা করে উবার।

২০১০ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর পদে প্রার্থী হন হুইটম্যান। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী মিট রমনি ও নিউ জার্সির গভর্নর ক্রিস ক্রিসটিকে সমর্থন করেন তিনি। ২০১৬ সালে মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের পক্ষ নেন হুইটম্যান।

এইচপি ইনকরপোরেশনের বোর্ড থেকে গত জুলাই মাসে সরে দাঁড়ান তিনি। এ বছরের সেপ্টম্বরে আবার প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ড্রপবক্সের বোর্ডে যুক্ত হন।

হুইটম্যান বলেন, কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা নেই তাঁর। রাজনীতিতে বিভিন্ন প্রার্থীকে সমর্থন করলেও সরাসরি রাজনীতিতে আসবেন না তিনি।

বিশ্লেষকেরা বলেন, হুইটম্যান সিলিকন ভ্যালিতে পরিচিত হলেও যুক্তরাষ্ট্রের মানুষের মধ্যে খুব একটা পরিচিত নন।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)