আগামীকাল রোববার খুলছে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক

0
1097

আনুষ্ঠানিকভাবে খুলে দেওয়া হচ্ছে যশোরের শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক।

রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নিজ নামে গড়ে ওঠা সফটওয়্যার পার্কটির উদ্বোধন করবেন।

এর মধ্য দিয়ে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে কাজে অবাধ সুযোগ তৈরি হচ্ছে। গত মাসেই হাইটেক পার্কটির নির্মাণ কাজ সম্পূর্ণরূপে শেষ হয়েছে।

পার্কের উদ্বোধন প্রসঙ্গে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, যশোরকে প্রযুক্তি-নগরী এবং ডিজিটাল ইকোনমিক হাব হিসেবে গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা এবং প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টার সার্বিক তত্ত্বাবধানে আমরা যশোরে সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক নির্মাণ করেছি। আগামীকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই পার্কের উদ্বোধন করার মধ্য দিয়ে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সম্ভাবনার নব দিগন্ত উন্মোচিত হবে।

তিনি বলেন, এই পার্কের যাত্রার মধ্য দিয়ে তরুণ প্রজন্মকে ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের অগ্রযাত্রায় শামিল করতে আমাদের প্রচেষ্টা দৃশ্যমান হলো। পাশাপাশি, এই উদ্যোগ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে ২০১০ সালের ২৭ ডিসেম্বর দক্ষিণ বঙ্গকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সম্পৃক্ত করতে যশোরের জনসমাবেশে যশোরে একটি আইটি পার্ক নির্মাণের যে ঘোষণা দিয়েছিলেন, আমরা সে প্রতিশ্রুতিও বাস্তবায়ন করলাম।

যশোরের শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্কের প্রকল্প পরিচালক তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের যুগ্ম সচিব জাহাঙ্গীর আলম টেকশহরডটকমকে বলেন, শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্কটিতে ইতোমধ্যে ৫৫টি প্রতিষ্ঠানকে জায়গা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যেখানে কাজ শুরু করেছে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান। এখন ১২ প্রতিষ্ঠান তাদের অফিস সজ্জার কাজ করছে। অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো কাজ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোববার সকাল ১১টায় হাইটেক পার্কটি উদ্বোধন করবেন। এজন্য পার্ক এলাকায় সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। উদ্বোধনের পরপরই সবগুলো প্রতিষ্ঠান তাদের কাজ শুরু করতে পারবেন বলে আশা করছি।

এর আগে ৫ অক্টোবর সফটওয়্যার পার্কে চাকরি মেলা করেছিল তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ। সেখানে ৩০টি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। হাজার হাজার তরুণ এদিন পার্কে চাকরির জন্য তাদের জীবনবৃত্তান্ত জমা দেন। সেখান থেকে বাছাই করে প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের পছন্দের প্রার্থীদের চাকরি দেবে। পার্কটিতে সবমিলিয়ে প্রায় ১২ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।

শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কটি নির্মিত হয়েছে যশোর শহরের বেজপাড়া এলাকায়। ১৫ তলা বিশিষ্ট ভবনটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ২৪১ কোটি টাকা। মোট জায়গার পরিমাণ দুই লাখ ৩২ হাজার বর্গফুট। প্রতিটি ফ্লোরে ১৪ হাজার বর্গফুটের জায়গা রয়েছে।

পার্কটিতে স্টার্টআপরাও বিনামূল্যে তাদের উদ্যোগ এগিয়ে নেওয়ার জন্য জায়গা পাবে।

প্রয়োজনীয় হলে পোস্টটি শেয়ার করুন।
ধন্যবাদ, itdoctor24.com এর সাথেই থাকুন।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)