আজকের বিষয় আপনি মারা গেলে কি হবে আপনার ফেসবুক আইডিটির?

আপনি চাইলে আপনার মৃত্যুর পরও ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি চালু
রাখতে পারবেন অথবা বন্ধ করে
দিতে পারবেন। যদি আপনি মৃত্যুর
পরও আপনার অ্যাকাউন্টটি চালু
রাখেন, তাহলে সেখানে ‘রিমেমবারিং’ বা স্মরণীয় শব্দটি থাকবে। এ ছাড়া মৃত্যুর আগে আপনার অ্যাকাউন্টটি যে কাউকে দলিল করে দিয়ে যেতে পারেন। ফলে আপনার মৃত্যুর পরও অ্যাকাউন্টটির কার্যক্রম সচল থাকবে। এ জন্য এ ব্যাপারে একটি আইনি চুক্তি বা দলিলের কপি ফেসবুকে পাঠাতে হবে। সেখানে ব্যক্তির নাম ও তাঁর সঙ্গে আপনার
সম্পর্কের বিষয়টিও উল্লেখ করতে
হবে। আপনার মৃত্যুর পর, মৃত্যুসনদ দেখিয়ে উইলে উল্লেখিত ব্যক্তিটি আপনার অ্যাকাউন্টটির দখল নিতে পারবেন। তবে যত দিন ফেসবুক আপনার মৃত্যুসনদ হাতে না পাচ্ছে, তত দিন অ্যাকাউন্টটি আপনারই থাকবে। এক্ষেত্রে আপনি কাউকে আপনার একাউন্টের উওরাধিকারী করে যেতে পারেন।
.
এখন বলতে পারেন ভাই আমার এক ফেরেন্ড মারা গেছে তার ফেসবুক আইডি এখনো ফেসবুকে আছে তার কি হবে?
.
আসলে ফেসবুক কিন্তু জানেনা কে বেঁচে আছে আর কে মারা গেছে, যারা মারা গেছে তাদের আইডি এখনো ফেসবুকে আছে। কিন্তু আজ থেকে ২০ বছর বা ৩০ বছর পর ফেসবুক আইডিগুলোকে চিরতরে বন্ধ করে দিবে। অথবা আপনি রির্পোট করেও আইডি বন্ধ করে দিতে পারেন। এজন্য ফেসবুকের কাছে আপনার রির্পোটের কারন তুলে ধরতে হবে। এভাবেই আমিও যখন পৃথিবী থেকে আপনারদের সবাইকে কাঁদিয়ে চলে যার তার প্রায় ২০ থেকে ৩০ অথবা ৫০ বছর পর ফেসবুক আমার এই পেজটি ও ডিলেট করে দিবে। কিন্তু আমি যদি আমার চলে যাওয়ার আগে কাউকে এই পেজের এডমিন করে যাই যে যদি আবার অন্যজনকে এডমিন করে যায় এভাবেই পেজটা চলতেই থাকবে সারাজীবন।

প্রয়োজনীয় হলে পোস্টটি শেয়ার করুন।
ধন্যবাদ, itdoctor24.com এর সাথেই থাকুন।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)