সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া ১০ সিইও নাম দেখুন

0
481

প্রযুক্তি বিশ্বের বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর শীর্ষ কর্মকর্তাদের বেতনের কথা শুনলে চমকে উঠবেন। ২০১৭ সালে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়ার রেকর্ড গড়েছেন স্ন্যাপচ্যাট ইনকরপোরেশনের প্রধান নির্বাহী ইভান স্পিগেল। তিনি ৬৩ কোটি ৭৮ লাখ মার্কিন ডলার, অর্থাৎ প্রায় ৫ হাজার ২৯৩ কোটি ৭৪ লাখ টাকার বেশি পারিশ্রমিক নিয়েছেন। গত বছরই স্ন্যাপচ্যাট প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি হিসেবে শেয়ারবাজারে যায়। তিনি কোনো প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে তৃতীয় সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া ব্যক্তিদের তালিকায় চলে এসেছেন।

এর আগে বার্ষিক সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন ২০০৭ ও ২০০৮ সালে হেজ ফান্ড ওচ-জিফে ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট গ্রুপের সিইও ড্যানিয়েল ওচ। ওই দুই বছর তিনি ৯১ কোটি ৮৯ লাখ ডলার বা ৭ হাজার ৬২৬ কোটি ৮৭ লাখ টাকা এবং ১১৯ কোটি মার্কিন ডলার বা ৯ হাজার ৮৭৭ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নেন।

গত বছর ইভান যে বেতন নিয়েছেন, তা অবশ্য পুরোপুরি নগদ নেননি। তার মোট পারিশ্রমিক মধ্যে ৬৩ কোটি ৬৬ লাখ মার্কিন ডলার শেয়ার হিসেবে ও ১২ লাখ মার্কিন ডলার অন্যান্য হিসেবে নিয়েছেন। স্পিগেল ছাড়াও গত বছর আরও কয়েকজন শীর্ষ পারিশ্রমিক নেওয়া সিইওর তালিকায় রয়েছেন। নির্বাহীদের বেতন হিসাব করা প্রতিষ্ঠান ইকুইলার ২০০ সর্বোচ্চ বেতন পাওয়া সিইওর একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। বার্ষিক ও তালিকা তৈরিতে সহযোগিতা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পত্রিকা নিউইয়র্ক টাইমস। ওই তালিকা থেকে শীর্ষ আরও ১০ সিইওর বেতন সম্পর্কে জানানো হলো:

১/মার্ক হার্ড: তিনি ওরাকলের সহপ্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ওরাকলে যোগ দেওয়ার আগে এইচপিতে ছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে ওরাকল প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি অ্যালিসন সরে দাঁড়ালে মার্ক হার্ড সহসিইও হিসেবে দায়িত্ব নেন। গত বছর তিনি ৩৪৩ কোটি ২৭ লাখ টাকার মতো বেতন পেয়েছেন। ১৯৭৭ সালে বব মাইনার এবং এড ওটসের সঙ্গে ওরাকল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ল্যারি এলিসন। এলিসনের উত্তরাধিকারী হিসেবে ওরাকলের সিইও পদে বসেন সাফরা কাটজ ও মার্ক হার্ড। পদবি এক হলেও প্রতিষ্ঠানটির আলাদা আলাদা অংশের দেখভাল করেন তাঁর।সাফরা ক্যাটজ২/সাফরা ক্যাটজ: ওরাকলের আরেক সহপ্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাফরা। গত বছর তিনি পারিশ্রমিক নিয়েছেন ৩৪২ কোটি ৭৩ লাখ টাকার বেশি। নারী সিইওদের মধ্যে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক সাফরার। ক্যাটজের দায়িত্বে আছে ম্যানুফ্যাকচারিং, আইনগত বিষয় ও আর্থিক বিষয়গুলো পরিচালনার ভার। ফরচুন সাময়িকীর ৫০ প্রভাবশালী নারী ব্যবসায়ীর তালিকায় ছিলেন।রবার্ট আ কোটিক৩/রবার্ট আ কোটিক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বা গেম প্রকাশক প্রতিষ্ঠান হিসেবে খ্যাত অ্যাকটিভিশন ব্লিজার্ডের সিইও রবার্ট আ কোটিক। গত বছরে তিনি ২৭৫ কোটি টাকার বেশি পারিশ্রমিক পেয়েছেন। ক্যারিয়ারের শুরুতে তিনি কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে কাজ করেছেন। ১৯৯০ সালে তিনি অ্যাকটিভিশনের শেয়ার কেনেন। পরের বছর এর সিইও হন।মেগ হুইটম্যান৪/মেগ হুইটম্যান: হিউলেট প্যাকার্ড বা এইচপির সিইওর দায়িত্বে আছেন মেগ। গত বছর তিনি ২৭৪ কোটি ৫০ লাখ টাকার মতো পারিশ্রমিক পেয়েছেন। হিউলেট-প্যাকার্ড কোম্পানি বা এইচপি যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। এটি মূলত কম্পিউটার, কম্পিউটারের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ প্রস্তুতকারক। এর সদর দপ্তর ক্যালিফোর্নিয়ার পালো অ্যালটো নামক স্থানে। কোম্পানিটির যাত্রা শুরু হয় একটি গাড়ির গ্যারেজে। বর্তমানে হিউলেট প্যাকার্ড বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় কম্পিউটার নির্মাতা।ভার্জিনিয়া রমেটি৫/ভার্জিনিয়া রমেটি: আইবিএমের সিইও ভার্জিনিয়া এম রোমেটির বেতন ২৭৪ কোটি টাকার মতো। ১৯৮১ সালে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিনস (আইবিএম) করপোরেশনে কাজ শুরু, ২০১১ সালে এই প্রতিষ্ঠানের প্রেসিডেন্ট এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হন তিনি। ২০১২ সালে টাইম সাময়িকীর ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় স্থান পান। নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার বিজ্ঞান এবং তড়িৎ প্রকৌশল বিষয়ে পড়াশোনা শেষ করেন।ডিওন উইজলার৬/ডিওন উইজলার: মার্কিন প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান হিউলেট প্যাকার্ড ইনকরপোরেশনের (এইচপি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডিওন উইজলার। এইচপির সিইও হিসেবে ডিওন উইজলার গত বছর ২৪১ কোটি টাকার মতো পারিশ্রমিক পান। পারসোনাল কম্পিউটার বা পিসির উদ্ভাবনী ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এইচপির প্রধান নির্বাহী ডিওন।ডিওন উইজলার: মার্কিন প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান হিউলেট প্যাকার্ড ইনকরপোরেশনের (এইচপি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডিওন উইজলার। এইচপির সিইও হিসেবে ডিওন উইজলার গত বছর ২৪১ কোটি টাকার মতো পারিশ্রমিক পান। পারসোনাল কম্পিউটার বা পিসির উদ্ভাবনী ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিচ্ছেন এইচপির প্রধান নির্বাহী ডিওন।জেমস জে পেটারসন৭/জেমস জে পেটারসন: জেমস জে পেটারসন প্রযুক্তি বিশ্বে জিম নামেও পরিচিত। ২০০০ সাল থেকে মাইক্রোসেমি করপোরেশন ও মাইক্রোসেমি আরএফআইএস ইনকরপোরেশনের সিইও হিসেবে কাজ করছেন তিনি। গত বছরে ২৪১ কোটি টাকার বেশি পারিশ্রমিক তাঁর। এ প্রতিষ্ঠান সেমিকন্ডাক্টর তৈরি করে।র‍্যান্ডাল স্টিফেনসন৮/র‍্যান্ডাল স্টিফেনসন: বহুজাতিক টেলিযোগাযোগ কোম্পানি এটিঅ্যান্ডটির সিইও র‍্যান্ডাল স্টিফেনসন। গত বছরে তাঁর পারিশ্রমিক ছিল ২০ কোটি ৮৬ লাখ টাকার বেশি। এটিঅ্যান্ডটি করপোরেশন মূলত আমেরিকান টেলিফোন অ্যান্ড টেলিগ্রাফ কোম্পানি একটি মার্কিন টেলিযোগাযোগ কোম্পানি যেটি ভোক্তা, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান ও সরকারি সংস্থাগুলোকে ভয়েস, ভিডিও, ডেটা সেবা প্রদান করে থাকে।হেনরি ফার্নান্ডেজ৯/হেনরি ফার্নান্ডেজ: মার্কিন সেমিকন্ডাক্টর কোম্পানি ব্রডকম। গত বছরের নভেম্বরে স্বদেশীয় চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ব্রডকম কোয়ালকমকে ১০ হাজার ৩০০ কোটি ডলারের বিনিময়ে কেনার প্রস্তাব দেয়। ব্রডকমের সিইও হেনরি ফার্নান্ডেজ গত বছর ১৮ কোটি ৫২ লাখ টাকার বেশি পারিশ্রমিক পেয়েছেন।সত্য নাদেলা।১০/সত্য নাদেলা: মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী সত্য নাদেলা বার্ষিক পারিশ্রমিকের হিসাবে গত বছর অন্যান্য সিইওদের তুলনায় বেশ পিছিয়ে ছিলেন। তিনি গত বছর ১৪ কোটি ৭৭ লাখ টাকার বেশি পারিশ্রমিক পান।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)