১১ কোটি ফাইভজি হ্যান্ডসেট হবে সরবরাহ করা হবে ২০২১ সালের মধ্যে

0
479

২০২১ সালের মধ্যে বিশ্বে ফাইভজি স্মার্টফোন সরবরাহ অন্তত ২৫৫ শতাংশ বেড়ে যাবে। এর ফলে সে বছরের মধ্যে কমপক্ষে ১১ কোটি ফাইভজি স্মার্টফোন সরবরাহ হবে বলে মঙ্গলবার প্রকাশ করা এক রিপোর্টে বলা হচ্ছে।

কাউন্টার পয়েন্ট রিসার্চ বলছে, ২০১৯ সালের মধ্যে যদিও এই গ্রোথ ব্যবসায়িক কিছু কারণে মন্থর হবে। কারণ এই সময়ে বিভিন্ন দেশে ফাইভজি নেটওয়ার্ক বিস্তারে অবকাঠামো তৈরি করা হবে।

আসলে ফাইভজি চিপের যে উচ্চ দাম সেটার জন্যই প্রাথমিকভাবে ডিভাইসের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। আর এই ডিভাইসগুলো শুরুতে একেবারে প্রিমিয়াম থাকছে। একই সঙ্গে খুব অল্প দেশেই প্রথম দিকে ফাইভজি বিস্তারে অবকাঠামো তৈরি করা হচ্ছে বলে জানান গবেষণা পরিচালক টম।

যুক্তরাষ্ট্র, কোরিয়া, চীন এবং জাপান ফাইভজির মূল বাজার হিসেবে তাদের অবকাঠামো উন্নয়ন করছে এবং সেসব দেশে স্মার্টফোন বিক্রি বাড়ছে।

আমরা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় কিছু ঘটা দেখতে পাচ্ছি ফাইভজি নিয়ে, এটা যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং জাপানে ঘটছে। এই দেশগুলো ফাইভজি নিয়ে যে যতোটা মনোযোগী তাতে অন্য দেশগুলোতেও এটি ছড়িয়ে পড়তে দেরি লাগবে না। যা ২০১৯ সালের মধ্যেই অন্য দেশগুলোকে ফাইভজি বিস্তারে সাড়া দেবে বলে বলছেন গবেষণার বিশ্লেষক মরিস ক্লাহেন।

এর বাইরে বিশেষ করে ইউরোপে ফাইভজি বিস্তারে জোরেশোরেই কাজ শুরু হচ্ছে বলে বলা হচ্ছে। তাই তারাও অপেক্ষায়।

ফাইভজি ডিভাইস মার্কেট শেয়ার অর্জন করা শুরু করেছে। তবে ফাইভজির ট্রান্সিশন এখনো অনেক ধীর। একসময় ফাইভজি ডিভাইস বিজনেস অনেক জোরেশোরেই শুরু হবে। শুধু এর অবকাঠামো উন্নয়ন হলেই এখন বড় ধরনের মার্কেট দেখা যাবে বলে জানান গবেষণা পরিচালক পিটার রিচার্ডসন।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)