হুয়াওই এবার নিয়ে এলো নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন মেট এক্স (Mate X)

0
432
হুয়াওয়ের নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন মেট এক্স (Mate X)

হুয়াওই এবার নিয়ে এলো নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন মেট এক্স (Mate X)। ২০১৯ সালটি যে ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের বছর হবে, তা অনেক আগে থেকেই ধারনা করতে পেরেছিলাম আমরা। ১ দিন আগেই স্যামসাং অফিসিয়ালি অ্যানাউন্স করেছে তাদের নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন, গ্যালাক্সি ফোল্ড। আগের রিউমর অনুযায়ী জানা গিয়েছিলো যে, স্যামসাং এর পাশাপাশি আরো অনেক স্মার্টফোন ব্র্যান্ড কাজ করছে ফোল্ডেবল স্মার্টফোন নিয়ে। যেমন- চাইনিজ স্মার্টফোন নির্মাতা শাওমি এবং হুয়াওয়ে। হুয়াওয়ে ইতোমধ্যেই তাদের নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোন অ্যানাউন্স করছে যার নাম দেওয়া হয়েছে “মেট এক্স”।

হুয়াওয়ের এই নতুন ফোল্ডেবল স্মার্টফোনটি স্যামসাং এর ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের তুলনায় আরো বেশি চিকন, আরো বড় স্ক্রিনযুক্ত এবং আরো বেশি ফোল্ডিং ফ্রেন্ডলি। এই ফোনটিতে ব্যাবহার করা হয়েছে ৮ ইঞ্চির ফোল্ডেবল অ্যামোলেড ডিসপ্লে যা ফোল্ড করা অবস্থায় অর্থাৎ ফোন মোডে হয়ে যায় ৬.৬ ইঞ্চি। এছাড়া ফোনটিতে আছে একটি রিয়ার ডিসপ্লে যা ফোল্ড করা অবস্থায় ৬.৪ ইঞ্চির হয়।

ফোনটি যখন ফোল্ড করা থাকবে, তখন এটি হয়ে যাবে একটি ডুয়াল স্ক্রিন স্মার্টফোন যার সেকেন্ডারি স্ক্রিনটি স্ক্রিন শেয়ারিং, সেলফি ক্যামেরা ভিউফাইন্ডার, ভিডিও প্লেয়িং ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের পারপাসে ইউজ করা যাবে। আর ফোনটি আনফোল্ড করা অবস্থায় এটি হয়ে যায় জাস্ট একটি ৮ ইঞ্চির ট্যাবলেট যা আলমোস্ট স্কয়ার সাইজের হলেও অ্যাকিউরেট স্কয়ার নয়।

তাছাড়া হুয়াওয়ের এই ফোল্ডেবল স্মার্টফোনটি যথেষ্ট পাওয়ারফুল একটি স্মার্টফোন। এই ফোনটিতে প্রোসেসর হিসেবে ব্যাবহার করা হয়েছে হুয়াওয়ের নিজস্ব হাই পারফরমেন্স কিরিন ৯৮০ চিপসেট। এছাড়া এই ফোনটিতে থাকছে পৃথিবীর প্রথম ৭ ন্যানোমিটার ৫জি চিপ এবং কোয়াড ৫জি অ্যান্টেনা ডিজাইন। হুয়াওয়ের মতে এই ফোনটি ৫জি নেটওয়ার্কের আওতায় থাকলে ৪.৬ গিগাবিট পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড প্রোভাইড করতে সক্ষম হবে যার সাহায্যে ইউজার একটি ১ গিগাবাইট সাইজের ফাইল ৩ সেকেন্ডের মধ্যেই ডাউনলোড করতে পারবে।

 

এছাড়া এই স্মার্টফোনটিতে থাকবে ৮ জিবি র‍্যাম এবং ৫১২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। আর এই স্মার্টফোনটি হুয়াওয়ের নিজের তৈরি ন্যানো মেমরি কার্ডও সাপোর্ট করবে। আর সম্পূর্ণ স্মার্টফোনটিকে ব্যাকআপ করার জন্য থাকছে ৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি।

এই ফোনটির ক্যামেরা সিস্টেম নিয়ে খুব বেশি ডিটেইলসে তেমন কিছু জানায়নি হুয়াওয়ে, তবে এই ফোনটিতে থাকবে কোয়াড ক্যামেরা সেটাপ। অন্যান্য হুয়াওয়ে স্মার্টফোনের মতোই এটিতেও ব্যাবহার করা হবে লেইকা অপটিকস ক্যামেরা সেন্সর।এই ফোনের প্রাইমারি ক্যামেরাটি হবে ৪০ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেন্সর, সেকেন্ডারি ক্যামেরাটি ১৬ মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড সেন্সর এবং আরেকটি হবে ৮ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো সেন্সর।

এই ফোনটির অফিসিয়াল প্রাইসিং কত হবে তা এখনো নিশ্চিতভাবে জানায়নি হুয়াওয়ে, তবে আশা করা যায় স্যামসাং এর ফোল্ডেবল স্মার্টফোন, গ্যালাক্সি ফোল্ডের প্রাইসের (১৯৮০ ইউএস ডলার) তুলনায় আরও বেশি হবে হুয়াওয়ে মেট এক্স-এর প্রাইস।
ধন্যবাদ, itdoctor24.com এর সাথেই থাকুন।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)