পাকিস্তানের আল্লামা তাকি উসমানীর উপর হামলা

0
423

বিশ্বখ্যাত আলেম আল্লামা তাকি উসমানীর গাড়িবহরে গুলিবর্ষণের ঘটনায় নিন্দার ঝড় ওঠেছে পাকিস্তানজুড়ে।

প্রেসিডেন্ট ডা. আরিফ আলভী, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, বিরোধী নেতা শাহবাজ শরীফ, সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল ও সামাজিক ব্যক্তিরা এ হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

দারুল উলুম করাচির ভাইস প্রিন্সিপাল ও পাকিস্তান সুপ্রিমকোর্টের শরীয়া বেঞ্চের সাবেক বিচারপতি মুফতি তাকি উসমানীর গাড়িবহরে শুক্রবার দুপুরে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। তাকি উসমানীকে লক্ষ্য করে চালানো হামলায় তিনি ও তার স্ত্রী প্রাণে বেচেঁ গেলেও ২জন নিহত হয়েছেন।

মালয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট মাহাথির মোহাম্মদের সফরের মধ্যে এমন প্রাণঘাতি হামলায় পাকিস্তানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আবারও প্রশ্ন ওঠেছে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মসজিদ মাদরাসাগুলোর নিরাপত্তা জোরদার এবং প্রখ্যাত আলেমদের নিরাপত্তা দিতে প্রাদেশিক গভর্নরদের নির্দেশ দিয়েছেন।

অতিদ্রুত এ হামলার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়ে ইমরান বলেন, বিশ্বখ্যাত এ আলেমকে হত্যাচেষ্টার পেছনে বড় কোনো উদ্দেশ্য আছে কি না, তা ও আমরা বের করার চেষ্টা করছি।

শুক্রবার দুপুরে চালানো এ প্রাণঘাতি হামলায় আল্লামা তাকি উসমানি প্রাণে বেচেঁ যাওয়ায় শুকরিয়া আদায় করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুফতি তাকি উসমানির মতো সম্মানিত ব্যক্তির ওপর এমন নৃশংস হামলার ভয়ানক কোনো ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত করে। তার মতো এমন ব্যক্তিত্ব পাকিস্তান ও মুসলিম বিশ্বের অমূল্য বড় সম্পদ।

শাহবাজ শরীফ

পাকিস্তানের ঐক্য ও সংহতি বিনষ্ট করতেই তাকি উসমানীর ওপর প্রাণঘাতি হামলা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তান ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলীর বিরোধী দলীয় নেতা শাহবাজ শরীফ।

বিশ্বখ্যাত এমন আলেমের ওপর এ হামলাকে কাপুরুষচিত আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, দেশকে বিভক্ত করতেই এ হামলা চালানো হয়েছে।

আসিফ আলি জারদারি

পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি তাকি উসমানীর গাড়িবহরে গুলিবর্ষণের ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে বলেন, সফলভাবে পাকিস্তান সুপার লীগের (পি এস এল) আয়োজন অনেকে সহ্য করতে পারেনি। তাই তারা এবার মাথাচাড়া দিয়ে ওঠতে চাচ্ছে। যারা দেশের নিরাপত্তাব্যবস্থাকে ভেঙে দিতে চাই, কঠিনভাবে তাদের প্রতিহত করতে হবে।

মাওলানা ফজলুর রহমান

অল পাকিস্তান মজলিসে মুত্তাহাদা আমেলা ও জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের চেয়ারম্যান মাওলানা ফজলুর রহমান এ হামলাকে আলেমদের ওপর টার্গেট কিলিং বলে দাবি করেছেন।

তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা পরিকল্পিতভাবেই এমন হামলা চালিয়েছে।

পোস্টটি প্রয়োজনীয় হলে শেয়ার করুন।

ধন্যবাদ, itdoctor24.com এর সাথেই থাকুন।

 

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)