Google Adsense নিয়ে আপনার সকল প্রশ্রেন উত্তর

0
412
google adsense

Google Adsense হলো অনলাইন থেকে ইনকামের সকচেয়ে বেটার ওয়ে। আমাদের সকলের প্রত্যাশা নূন্যতম একটা Google Adsense. আর Google Adsense নামের এই সোনার হরিনের পেছনে ছোটে নাই এমন কোন ফ্রিলান্সার নাই। কেউ পেযেছে আবার কেউ শতবার চেষ্টা করেও পায় নাই। তাই আমি আপনাদের মনের সকল প্রশ্লেন উত্তর নিয়ে আমার পোষ্টটি সাজিয়েছি। আমি জানি না, সবগুলো প্রশ্ন এবং তার উত্তর আমি উপস্থাপন করতে পেরেছি কি না। তবে চেষ্টা করেছি। আসাকরি সবার উপকারে আসবে।

প্রশ্ন- ১. Google Adsense এর জন্য Site তৈরি করে কতগুলো পোষ্ট দিতে হবে? পোষ্টগুলো কতো বড়ো হতে হবে?

উত্তর: Google Adsense এর জন্য Apply করার পূর্বে কমপক্ষে ৩০ টা পোষ্ট দেওয়া ভালো। তবে ২৫+ হলেই Google Adsense এ্যাপ্রুভ হবে। পোষ্টগুলো অবশ্যই ৫০০+ ওয়ার্ডের হতে হবে। যদি সম্পূর্ণ ইনফরমেশন উপস্থাপন করা যায় তা হলে কম হলেও সমস্যা নাই। আর পোষ্ট যত বড় হবে ততই ভালো।

প্রশ্ন- ২. পোষ্ট এবং ফটো কত শতাংশ ইউনিক হতে হব?

উত্তর: ৯০% + ইউনিক হতে হবে। ১০০% ইউনিক হলে ভালো হয়।

প্রশ্ন- ৩. শুধু পোষ্ট করলেই কি Google Adsense এ্যাপ্রুভ হবে?

উত্তর: না, Google Adsense এ্যাপ্রুভ হতে হলে আপনার website a পোষ্ট এর পাশাপাশি About Us, Contact, Privacy & Policy, DMCA পেইজ থাকতে হবে। খেয়াল রাখবেন কোন ক্যাটাগরি যেন ফাকা না থাকে। প্রতিটা ক্যাটাগরি তে মিনিমাম ৫-৭ টা কনটেন্ট রাখবেন। তাহলে বেশি ভালো হয়।

প্রশ্ন- ৪. Content Image যদি Google Search এর মাধ্যেমে নিয়ে ব্যবহার করা হয় তাহকে কি Approve পাওয়া সম্ভব? নাকি একদম Unique Image and Unique Article Publish করতে হবে?

উত্তর: Unique Image হলে সবচেয়ে ব্যাটার । তবে গুগল থেকে কখনোই কপিরাইট ইমেজ নিবেন না, কোন ইমেজ নিলেও টাইটেল এবং সাইজ পরিবর্তন করে দিবেন । কোন সমস্যা হবে না।

প্রশ্ন- ৫: আর্টিকেল গুলো যদি স্পিন/রিরাইট করা হয় এবং গুগলের কপি স্কেপ প্রিমিয়াম পাশ হয় তাহলে কি এডসেন্স দিবে ?

উত্তর: না। এভাবে চেষ্টা করে আজ পর্যন্ত কেউ পায় নাই।

প্রশ্ন- ৬. unique article এর সাথে ইমেজ গুগল থেকে নিয়ে পাবলিশ করলে কোন সমস্যা হবে কিনা?

উত্তর: সমস্যা হবে না যদি ইমেজ সাইজ পরিবর্তন করে দেন। তবে গুগল থেকে কারো কপিরাইট সিল দেওয়া / প্রোটেকশন করা ইমেজ নেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

প্রশ্ন- ৭. সাইটে ৪০-৫০ টা ইউনিক আর্টিকেল আছে কিন্তু ভিজিটর খুবই কম এমন সাইট দিয়ে কি অ্যাডসেন্স পাওয়া যাবে?

উত্তরঃ গুগল চায় ভালো মানের কনটেন্ট। ভিজিটর কোন ফ্যাক্ট না Top Level Domain, About, Contact, Privacy & DMCA পেজ ঠিক থাকলে approval পেয়ে যাবেন।

প্রশ্ন- ৮. Google adsense এর জন্য Sub domain ব্যবহার করা যাবে?
উত্তরঃ হ্যা যাবে। তবে আগে টপ লেভেল ডোমেইন দিয়ে এপ্রুভ করাতে হবে, তারপর সাব ডোমেইন এ অ্যাডসেন্স ব্যাবহার করতে পারবেন ।

প্রশ্ন- ৯: ব্লগ ছাড়া অন্য অন্য কোন সাইট এর জন্য আপ্রভাল সম্ভব কি? যেমন কোশ্চেন এন্সার, হাউ টু ইটিসি।

উত্তরঃ এইরকম সাইটের অথারিটি ভালো মানের হলে + Alexa Rank১ লাখের নিচে থাকলে হবে। মিনিমাম ৫-৭ মাস এসইও করতে হবে । তাহলে পাওয়ার চান্স আছে।

প্রশ্ন- ১০: সব visitor যদি facebook /Google+ / Twitter থেকে আসে তাহলে কি adsense দিবে ?

উত্তরঃ গুগল সব আইন মেনে সাইট বানালে ভিজিটরস না থাকলেও অ্যাডসেন্স দিবে । facebook /Google+ / Twitter থেকে আসা ভিজিটরের এর চেয়ে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে আসা ভিজিটরের ডিমান্ড বেশি। কাজেই এসইও তে বেশি জোর দিতে হবে।

প্রশ্ন- ১১: Hosted and non-hosted adsense এর মাঝে পার্থক্য কি ?

উত্তরঃ Hosted Adsense & Non Hosted Adsense এর মধ্যে মেইন পার্থক্য হচ্ছে… Hosted শুধুমাত্র গুগলের সাইট YouTube & Blogger এ ইউজ করা যায়। আর নিজস্ব সাইটে Non Hosted Adsense ম্যাক্সিমাম 500 Website এ ব্যাবহার করা যায়। রেভিনিউ শেয়ারিং সেম ৬৮ %.

প্রশ্ন- ১২: ওয়েবসাইটের বয়স কত দিন হলে Google Adsense এর জন্য apply করা ভালো?

উত্তর: কমপক্ষে ৩ মাস।

প্রশ্ন- ১৩: blogspot.com থেকে ব্লগিং করল্র কি Adsense পাব?

উত্তর: হ্যা পাবেন। তবে টপ লেভেল হলে সম্ভাবনা বেশি থাকে।

প্রশ্ন- ১৪: blogspot.com এর সাথে টপ ডোমেইন যুক্ত করলে ভালো হবে না কি হোস্টিং ক্রয় করলে ভালো হবে?

উত্তর: Adsense এর ক্ষেত্রে একই। তবে হোস্টিং wordpress setup করলে SEO সুবিধা পাওয়া যায়।

প্রশ্ন- ১৫: hosted account কি non hosted account এ convert করা যায় ?
উত্তরঃ হ্যাঁ করা যায়, গুগল পলিসি তে সাইট বানিয়ে অ্যাডসেন্স একাউন্ট এ সাইট অ্যাড করতে হবে। গুগল রিভিউ করবে, সব ঠিক থাকলে .Com এ অ্যাড সো করবে। আর কোন সমস্যা থাকলে .Com এ অ্যাড দেখাবে না।

প্রশ্ন-১৬. Privacy & DMCA পেজের কনটেন্ট দিবো কি ভাবে? করো দেখে রিরাইট করবো না ইউনিক লিখবো। না কি কোন টুল দিয়ে জেনারেট করে নিবো?

উত্তরঃ Privacy টুলস দিয়ে জেনারেট করবেন আর DMCA  পেজসবার একই রকম থাকে । ২-৪ লাইন গুরিয়ে ফিরিয়ে নিজের মতো করে দেন। এখনো কোন দিন সমস্যা হয় নাই। আশা করি আপনার বেলাতেও হবে না।

প্রশ্ন- ১৭: ফ্রী ডোমেইন হোস্টিং সাইট যেমন .tk এবং  .wordpress    .webley সাইট তৈরি করে কি এ্যাডসেন্স পাওয়া যাবে?
উত্তরঃ না

প্রশ্ন- ১৮: blogger এবং নিজস্ব website ( .com domain ) দিয়ে আবেদন করে পাওয়া account গুলোর মধ্যে advantage & disadvantage কি?

উত্তর: কোন advantage & disadvantage নাই। তবে ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে এসইও সুবিধা বেশি পাবেন, যেইসব ব্লগারে পাবেন না।

প্রশ্ন- ১৯: এডসেন্স কত প্রকার ও কি কি? এবং এদের মধ্যে পার্থক্য কি ?
উত্তরঃ অ্যাডসেন্স সাধারণত ২ প্রকার। Hosted Adsense & Non Hosted Adsense এর মদ্ধে মেইন পার্থক্য হচ্ছে… Hosted শুধুমাত্র গুগলের সাইট Youtube & Blogger এ ইউজ করা যায়। তবে শুনেছি ২০১৪ সালের পরে পাওয়া Hosted Adsense নাকি ব্লগারে অ্যাড দেখাতেও ঝামেলা করে। আর নিজস্ব সাইটে পাওয়া একাউন্ট হচ্ছে Non Hosted Adsense , এটা দিয়ে ম্যাক্সিমাম 500 Website এ ব্যাবহার করা যায়। রেভিনিউ শেয়ারিং সেম ৬৮ % ।

প্রশ্ন- ২০: কিভাবে Adsense থেকে বেশি বেশি ইনকাম পাওয়া যাবে? Adsense ধরে রাখার উপায় কি?

উত্তরঃ গুগলের নিয়ম অনুযায়ী সাইট বানিয়ে অ্যাডসেন্স এপ্লাই করলে পাওয়া যায়। আর অ্যাডসেন্স ধরে রাখার জন্য গুগলের কোন টার্মস ভঙ্গ করা যাবে না। আর বেশি বেশি ইনকামের জন্য বেশি বেশি ভিজিটরস লাগবে। তার জন্য এসইও জানতে হবে।

প্রশ্ন- ২১: Google adsance এর টাকা কিভাবে উঠানো যায় ?

উত্তরঃ ২০১৩ সালের ডিসেম্বরের আগে পর্যন্ত আমরা বাংলাদেশের সবাই চেক দিয়ে টাকা ক্যাশ করাতাম। মাস খানিক সময় লাগতো টাকা ক্যাশ করতে। এখন EFT আছে । সরাসরি ৪-৫ দিনেই টাকা ব্যাংক এ চলে আসে।

প্রশ্ন- ২২. .com Domain নিয়ে বাংলায় ব্লগিং করলে এডসেন্স পাওয়া যাবে?

উত্তরঃ না। তবে ইংরেজী সাইট থেকে Hosted Adsense পাওয়া পর বাংলা সাইটে ব্যবহার করা যাবে।

প্রশ্ন- ২৩. YouTube থেকে Adsense পেতে হলে কি পরিমান ভিডিও পোষ্ট করতে হবে?

উত্তর: ১টা ভিডিও দিয়েই YouTube থেকে Adsense এ্যাপ্রুভ করা যায়। তবে অবশ্যই ইউনিক ভিডিও হতে হবে।

প্রশ্ন- ২৪. YouTube  এর Adsense কি Blogger এ ব্যবহার করা সম্ভব?

উত্তর: না।

ধন্যবাদ সবাইকে। আপনাদের আর কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করুন। আমি উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো। আর পোষ্টটি ভালো লাগলে ফেসবুকে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here