তাসকিনের বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত, আজই খেলতে পারেন ভারতের বিপক্ষে।

0
386

একটার পর একটা সুখবর, খারাপ খবর ঘটনাবহুল করে রেখেছে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অভিযান। তাসকিনের বিষয়ে আজই নতুন সিদ্ধান্ত, খেলবেন ভারতের বিপক্ষে? তবে সবকিছু বাংলাদেশের পক্ষে থাকলে অবসান হতে পারে এই প্রশ্নের।

গতকাল গভীর রাতে যতদূর খবর পাওয়া গেলো, আজই ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে মাঠে ফিরে আসতে পারেন আইসিসির বিতর্কিত সিদ্ধান্তে নিষেধাজ্ঞায় থাকা ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আপিলের সুবাদে আইসিসি তার সিদ্ধান্ত আজ সকাল বেলায় প্রত্যাহার করতে যাচ্ছে বলে বিশ্বস্ত কিছু সূত্র জানিয়েছে।

গতকালই আইসিসির টেকনিক্যাল কমিটি, জুডিশিয়াল কমিশন এবং বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে শুনানিতে অংশ নিতে ব্যাঙ্গালুরুতে যান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সেখানে অনুষ্ঠিত শুনানি শেষে পাপনকে আইসিসি তার মনোভাব জানালেও সিদ্ধান্ত প্রকাশ করেনি। তবে একটি সূত্র বলছে, আজই সিদ্ধান্ত জানানো হবে। আর সে সিদ্ধান্তে তাসকিনের মাঠে ফেরার সম্ভাবনা প্রবল।

তেমন হলে এক ম্যাচ বিরতিতে আবার স্কোয়াডে এবং একাদশে ফিরে আসবেন তাসকিন। আর এই পেসারকে নিয়ে বাড়তি মনোবলসহ আজ মাঠে নামবে বাংলাদেশ। বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়। গত দুই ম্যাচে পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে গ্রুপ-২ এর পয়েন্ট তালিকার তলানিতে

রয়েছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ডের কাছে প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে ভারতের সংগ্রহ ২ পয়েন্ট। আজকের ম্যাচ সামনে রেখে গতকাল চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছে ভারত। তবে বাংলাদেশ টিম হোটেলেই সময় কাটিয়েছে।

গত ৯ মার্চ ধর্মশালায় নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের দুই বোলার আরফাত সানি ও তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন সন্দেহজনক বলে রায় দেন ম্যাচের কর্মকর্তারা। তাদের রিপোর্টের পর আরাফাত সানি ১২ মার্চ ও তাসকিন ১৫ মার্চ নিকটস্থ চেন্নাইয়ের শ্রী রামচন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবরেটরিতে অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন। ১৯ মার্চ আইসিসি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায়, অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে বাংলাদেশের দুই বোলার আরাফাত সানি ও তাসকিন আহমেদকে সব ধরনের বোলিং থেকে নিষিদ্ধ করেছে তারা।

আইসিসি বলেছে, চেন্নাইয়ে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় আরাফাত সানির প্রায় সব ডেলিভারি বৈধ সীমার ওপরে বলে দেখা গেছে। তাসকিনের ক্ষেত্রে কিছু কিছু ডেলিভারি অবৈধ বলে জানিয়েছে আইসিসি।

কিন্তু আইসিসির এই রায়ে বিসিবি বিস্ময় প্রকাশ করে কয়েকটি পয়েন্টে। তাসকিনের বিরুদ্ধে প্রাথমিক রিপোর্টে তার কোনো নির্দিষ্ট ধরনের ডেলিভারি বা ডেলিভারিগুলো সন্দেহজনক, তা উল্লেখ করেননি আম্পায়াররা। ফলে এই রিপোর্ট পরবর্তী পরীক্ষায় পাঠানোর জন্য যথেষ্ট ছিল না। তাসকিন আহমেদের নিয়মিত বল (স্টক ডেলিভারি) ও ইয়র্কারকে বৈধ বলেছে আইসিসি। কেবল অবৈধ বাউন্সার। ফলে তাকে নিষিদ্ধ করা সম্ভব না। এমন ক্ষেত্রে বাউন্সারের ক্ষেত্রে সতর্ক করে দিয়ে বল করতে দেয়ার বিধান আছে।

এসব আপত্তিকে রিভিউ নোটিস হিসেবে দাখিল করে বিসিবি। পাশাপাশি জোর কূটনৈতিক তৎরতা চালানো হয়। তারই প্রেক্ষিতে নজিরবিহীনভাবে একদিন পরই অনুষ্ঠিত হলো শুনানি। গতকাল গভীর রাতে শেষ হওয়া শুনানি ইতিবাচক ফল আনছে বলেই খবর পাওয়া যাচ্ছে।

এদিকে নানা ধরনের বাধা বিপত্তি থাকলেও আজ ভারতের বিরুদ্ধে আত্মবিশ্বাসী হওয়ার অনেকগুলো কারণ রয়েছে টাইগারদের জন্য। পেসার মুস্তাফিজ সুস্থ হয়ে খেলায় ফিরেছেন। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে কামব্যাক ম্যাচে তিনি দু’টি উইকেটও পেয়েছেন। ফর্মে ফেরার আভাস দিচ্ছেন সাকিব ও মুশফিক। সাকিব পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দারুণ এক অর্ধশতকের পর অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ৩৩ রান ও ৩টি উইকেট শিকার করেছেন। তবে সংশয় রয়েছে তামিমকে নিয়ে।

গতকাল বিকাল পর্যন্ত সুস্থ হননি তামিম। তাই আজ ভারতের বিরুদ্ধেও তার খেলা অনিশ্চিত। ভারতের ম্যাচ উইনার হিসেবে পরিচিত তিন ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা ও সুরেশ রায়নার ব্যাটে রান আসছে না। তবে বরাবরের মত আজও চিন্নাস্বামীর ব্যাটিং পিচে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন বিরাট কোহলি। তবে মুস্তাফিজ, মাশরাফিরা যদি সেটা সামাল দিতে পারেন তাহলে শেষ হাসিটা হাসতে পারে বাংলাদেশও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here