স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা যেভাবে “সিম নিবন্ধন” করতে পারবেন?

0
289

মধ্যেই বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। তবে যাদের কাছে জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাদের ক্ষেত্রে পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং জন্ম নিবন্ধন সনদ প্রাথমিকভাবে নিবন্ধনের ক্ষেত্রে গ্রহনযোগ্য হবে। এ ছাড়া যারা জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য আবেদন করেছেন তাদের আবেদন নম্বরটিও গ্রহন করা হবে। পরবর্তী সময়ে তারা জাতীয় পরিচয়পত্র হাতে পেলে স্থায়ী নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন। রোববার রাজধানীর ফার্মগেটে গ্রামীণফোন সেন্টারে গিয়ে সাধারণ নাগরিকের মতোই লাইনে দাঁড়িয়ে নিজের সিমকার্ডের বায়োমেট্রিক নিবন্ধন সম্পন্ন করেন তারানা হালিম। নিবন্ধন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নিবন্ধনের বিরুদ্ধে একটি মহল ভুল তথ্য দিয়ে অপপ্রচার চালালেও সাধারণ মানুষ বিপুল আগ্রহ নিয়েই নিবন্ধন সম্পন্ন করছে।
স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রী যাদের বয়স ১৮ এর নিচে তারা নিজের নামে পারবেন না কিন্তু পিতা মাথার ভোটার আইডি দিয়ে সিম নিবন্ধন করতে পারবেন। আর যাদের বয়স ১৮ হয়েছে কিন্তু এন আই ডি হয়নি তারা জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে “সিম নিবন্ধন” করতে পারবেন।
প্রতিটি নাগরিকের নিরাপদ টেলিযোগাযোগ সেবা নিশ্চিত করতেই এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ ব্যবস্থায় কোনভাবেই গ্রাহকের ফিঙ্গারপ্রিন্ট সংরক্ষণ করা হচ্ছে না বলেও তিনি জানান।
প্রতিমন্ত্রী জানান, তিনি নিজে তিনটি সিমকার্ড ব্যবহার করেন। কিন্তু অন্য দু’টি সঙ্গে না থাকায় নিয়ম অনুযায়ী একটি সিমকার্ডেরই নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন। দু’এক দিনের মধ্যে সাধারণ নাগরিকের মত নিজে সেন্টারে এসে বাকী দু’টি সিমকার্ডের নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন। তিনি বলেন, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে শুধুমাত্র গ্রাহকের জাতীয় পরিচয়পত্রে থাকা তথ্য যাচাই করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে কারও ফিঙ্গারপ্রিন্ট বা আঙুলের ছাপ সংরক্ষণ করা হচ্ছে না।

Comments

facebook comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here