এন্ড্রয়েডের কিছু মজার অ্যাপস

1
1556

বর্তমানে  স্মার্টফোনে ব্যবহার করে না এমন লোক নেই বলেই চলে। বিভিন্ন স্মার্টফোনে বিভিন্ন  ধরণের অপারেটিং সিস্টেম থাকে, তবে বর্তমান যুগে সব চেয়ে জনপ্রিয় হল এন্ড্রয়েড এবং আইওএস ।

তবে সব বেশি ব্যাবহারকারী সংখ্যা স্মার্টফোন হল এন্ড্রোইড, আর নতুন এন্ড্রয়েড ফোন মানে হচ্ছে নতুন ফিচার এবং ভালো কিছু অ্যাপস চালানোর অভিজ্ঞতা। এন্ড্রয়েড ব্যাবহারকারীদের কথা চিন্তা করে প্রতিবছর প্রায় শত শত অ্যাপ বের করে থাকে এন্ড্রোইড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি গুলো। আপনি হয়তো হাতে গোনা কয়েকটি অ্যাপস ছাড়া তেমন এপস ব্যবহারই করেননা, কিন্তু আপনি হয়তো জানেন না যে এন্ডয়েডের জন্য এমন কিছু মজার অ্যাপস আছে যা আপনার স্মার্টফোনেটিকে করে তুলবে আরো স্টাইলিশ এবং সবার থেকে আলাদা। আমরা এই সিরিজে আগেও দুটি আর্টিকেল করেছি,তারই প্রেক্ষিতে আজ ৩য় খন্ড

তাহলে সবাই জেনে নিন এমন ৫টি অ্যাপ যা আপনার স্মার্টফোনেকে করবে আরো মজাদার।

১. ওয়ান ওয়েদার(1 weather): ওয়ান ওয়েদার অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি আবহাওয়ার সকল খবর জানতে পারবেন। এছাড়া এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি আবহাওয়ার বর্তমান পরিস্থিতি, পূর্বাভাস, রাডার, আবহাওয়া বিদ্যা, গ্রাফ এবং চন্দ্র ও সূর্য ট্র্যাকার ইত্যাদি সম্পর্কে মজার তথ্য জানতে পারবেন।

Barta image (4)এই অ্যাপটিকে অনেক আকর্ষণী ভাবে করা হয়েছে। অ্যাপ টি বিনা মূল্যে গুগোল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে কিন্তু অ্যাপ এর মাঝে এড আসার সিস্টেমকে বাদ দিতে হলে আপনাকে ২ ডলার খরচ করতে হবে। যদি আপনি মাঝে মাঝে এড আসার জন্য বিরক্তবোধ না করেন তাহলে বিনামূল্য এই অ্যাপ টি ব্যবহার করতে পারবেন।

২. এপ লক(App lock): অ্যাপ লকার একটি সিম্পল এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমে আপনার মোবাইলের গুরুত্বপূর্ন অ্যাপগুলোকে পাসওয়ার্ড দিয়ে লক করতে পারবেন। অ্যাপ লকারের মাধ্যমে আপনার মোবাইলের প্রাইভেসি আপনার নিজের কাছে থাকবে, আপনার অনুমতি ছাড়া কেউ আপনার মোবাইলের অ্যাপগুলো ওপেন করতে পারবে না।

Barta image (5)এই অ্যাপ টির ফ্রী ভার্সন এর সাথে প্রিমিয়ার ভার্সন ও আছে। এখন আপনার ইচ্ছা আপনি ফ্রী ভার্সন ইউজ করবেন নাকি কিছু ডলার খরচ করে প্রিমিয়ার ভার্সন টি ইউজ করবেন। ফ্রী ভার্সনে কিছু ফিচার আপনি খুজে পাবেন না যেটা প্রিমিয়ার ভার্সনে আছে।

৩. জিবোর্ড(Gboard): জিবোর্ড গুগল এর অফিশিয়াল কীবোর্ড অ্যাপ্লিকেশন, এটি একটি সহজ কীবোর্ড যাতে খুব বেশী কৃত্রিমতা নেই। এতে অঙ্গভঙ্গি টাইপিং (সোয়াইপিং), হালকা থিমিং, ভয়েস টাইপিং, ইমোজি অনুসন্ধান, GIF সমর্থন এবং আরও অনেক কিছু আছে।

Barta image (1)এটির সবচেয়ে আকর্ষনীয় বৈশিষ্ট্য হল অন্তর্নির্মিত গুগল অনুসন্ধান যা আপনাকে আপনি যে কীবোর্ডে বা অ্যাপ্লিকেশনটিতে আছেন তার থেকে বের না হয়েই ওয়েবে অনুসন্ধান করতে দেয়। এটি ডিভাইস গুলোর মধ্যে সমন্বয় করতে পারে যাতে আপনার সংরক্ষিত শব্দগুলি আপনার সাথে থেকে যায়। এটি কার্যকর, সহজ এবং 100% ফ্রি অ্যাপ। এটি নিশ্চিতভাবে একটি অন্যতম ফ্রি অ্যানড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন।

৪. ব্লু মেইল(Blue Mail): ইমেইলের জন্য সেরা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপগুলোর একটি হচ্ছে ব্লু মেইল। সাধারণ ডিজাইনে তৈরি অ্যাপটি আপনার ইমেইলগুলোকে ঠিকঠাক সাজিয়ে রাখতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি এতে রয়েছে হাজারো ইমেইল প্ল্যাটফর্মে কাজ করার সক্ষমতা, গুছিয়ে রাখার জন্য কালার কোডিং, অ্যাপ থিমিং, অ্যান্ড্রয়েড উইয়ার সহায়তা ও উইজেটস।

Barta image (2)এ ছাড়া, অ্যাপটিতে রয়েছে বেশকিছু স্মার্ট ফিচার, যেমন — প্রতিটি অ্যাকাউন্টে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নোটিফিকেশন বন্ধ করে রাখার অপশন। অ্যাপটির বেশিরভাগ বৈশিষ্ট্যই ভালো, কেবল অল্প কিছু অসঙ্গতি ছাড়া। গুগল প্লে স্টোরে পাঁচের (৫) মধ্যে মধ্যে ৪.৭ রেটিং পাওয়া তাই প্রমাণ করে। ব্যবহার করে দেখতে পারেন অ্যাপটি।

৫. সলিড এক্সপ্লোরার(solid explorer): বর্তমানে প্রায় সব এন্ড্রয়েড ফোনেই Es File manager দেখা যায়,তো আমরা চিন্তা করলাম এর ব্যাতিক্রম কি আছে একটু খুজে দেখার জন্য।এরকমই একটি এপ্লিকেশন হচ্ছে solid explorer, ফিচারের দিক দিয়ে দিয়ে হোক কিংবা এর বৈশিষ্ট্যের কথা হোক প্রায় সব দিক দিয়েই এটি অসাধারন।

Barta image (3)এই এপটির মধ্যে রয়েছে ডাবল প্যানেল ডিসপ্লে,যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই দুইটি ফোল্ডার একসাথে ব্রাউজ করতে পারবেন,এবং এক ফোল্ডার থেকে অন্য ফোল্ডারে ফাইল ট্রান্সফার করতে পারবেন শুধু টেনে নেয়ার মাধ্যমেই। সেই সাথে রয়েছে গুগল ড্রাইভ, ড্রপবক্স এবং ওয়ান ড্রাইভের সুবিধা। এছাড়াও এর মধ্যে রয়েছে হিডেন ফাইল,জিপ রার এক্সট্রাকশন এবং থিম কাস্টমাইজেশন।

1 COMMENT

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)