অ্যান্ড্রোয়েড ফোনে এবার ইউটিউব ওপেন করেও মাল্টিটাস্কিং করুন ইচ্ছে মতো! সেই সাথে নাম্বার ওয়ান ভিডিও/অডিও ডাউনলোডার তো থাকছেই।

0
525

আমরা যারা অ্যান্ড্রোয়েড ফোনে ইউটিউব অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করি তারা ভালো করেই জানি ইউটিউব অ্যাপ প্লে করলে অন্য কোন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা যায় না। ইউটিউব হলো বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিডিও দেখার নেটওয়ার্ক। কিন্তু আমরা সবাই কি ইউটিউবে গিয়ে শুধু ভিডিও দেখি? আমার মতো অনেকেই আছেন যারা ইউটিউব থেকে গান শুনে। কিন্তু শুধু গান শুনার জন্য ইউটিউব অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করলে কি আমাদের চলে? আমরা গানও শুনবো আবার অন্য কাজও করবো। কিন্তু ইউটিউব অ্যাপ্লিকেশন এর শর্ত হলো এটা কোন ভাবেই ব্যাকগ্রাউন্ডে প্লে হবে না। আপনি ইউটিউব অ্যাপ্লিকেশনকে মিনিমাইজ করা মাত্রই সেটা বন্ধ হয়ে যাবে। আমি এ যাবত কালে এই সমস্যা সমাধানের জন্য অনেক ঘাটাঘাটি করেছি। কিছু ক্ষেত্রে আংশিক সমাধান পেলেও পুরোপুরি সমস্যাটি সমাধান করতে পারিনি। তবে কিছুদিন আগে হঠাৎ করেই এই সমস্যা থেকে চিরতরে মুক্তি পাই নতুন একটা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে। আজ সে বিষয়েই লিখবো।

ইউটিউব অ্যাপ ও মাল্টি টাস্কিং – আসলেই কি সম্ভব?

এই প্রশ্নটা হয়তো আপনাদের মাথায় সব সময় ঘুরে বেড়ায় যারা ইউটিউব অ্যাপ এর ডেভেলপার এবং প্রাইভেসি পলিসি সম্পর্কে জানেন। এখন কথা হলো ইউটিউব অ্যাপ্লিকেশনে হয়তো এটা সম্ভব না কিন্তু অন্য কোন অ্যাপ্লিকেশনে তো এটা সম্ভব হতে পারে। ঠিক এ কারণেই আমি অ্যান্ড্রোয়েড ফোনে ফায়ারফক্স ব্রাউজার ব্যবহার করে এই সমস্যার প্রাথমিক সমাধান করেছিলাম। কিন্তু সত্যি কথা বলতে সেটা শতভাগ কাজ করেনি। অধিকাংশ ক্ষেত্রে সেটা একটা ভিডিও প্লে করার পরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে দ্বিতীয় ভিডিও প্লে করতে পারেনি।

যারা এই বিষয়টা এক্সপেরিমেন্ট করতে চান তারা এখানে ক্লিক করে অ্যান্ড্রোয়েড এর জন্য ফায়ারফক্স ব্রাউজার ডাউনলোড করুন। তারপর ইউটিউবে গিয়ে যেকোন ভিডিও প্লে করুন এবং উপরের চিত্রের মতো ডেস্কটপ ভার্সন করে নিন। এরপর অ্যাপ্লিকেশনটি মিনিমাইজ করে ফেলুন। দেখবেন সেটা ব্যাকগ্রাউন্ডে প্লে হচ্ছে।

ইউটিউব অ্যাপ ও মাল্টি টাস্কিং – যার কারণে সম্ভব হলো

এখন কথা হলো, কোন অ্যাপ্লিকেশন আপনি শুধুমাত্র ইউটিউবের জন্য তৈরি করলেন কিন্তু সেটা ইউটিউবের শর্ত মানলো না তাহলে কি সেটা টিকবে? উত্তর হলো, না। এমন কোন অ্যাপ্লিকেশনকে ইউটিউব কোনদিন অনুমোদন দেবে না। কিন্তু বিষয়টা যদি এমন হয় যে সাপও মরবে আবার আবার লাঠিও ভাঙবে না তখন ইউটিউবের কোন কিছু করার থাকে না। ইউটিউব তাদের ভিডিওগুলো অ্যান্ড্রোয়েড ফোনে ব্যাকগ্রাউন্ডে প্লে করার সুবিধা দিবে না। কিন্তু বিষয়টা যদি এমন হয় যে, ইউটিউব ভিডিওটি খুব ছোট্ট একটা ভাসমান স্ক্রিনে সব কিছুর উপরে ভেসে থাকবে এবং এর ফলে আপনি অন্য যেকোন কাজ একসাথে করতে পারবেন তখন কি হবে?

এরকমই একটা অ্যাপ্লিকেশন হলো ফ্লাই টিউব। এটা ইউটিউবের যেকোন ভিডিও বা প্লে-লিস্ট এর ভিডিও গুলো প্লে করতে পারে অন্য যেকোন অ্যাপ্লিকেশনের পাশাপাশি। অর্থাৎ আপনি যখন ফ্লাই টিউব ব্যবহার করে কোন ইউটিউব ভিডিও প্লে করবেন তখন এটা খুব ছোট্ট স্ক্রিন প্রদর্শন করে সবার উপরে ভেসে থাকবে। আপনি চাইলেই স্ক্রিন সাইজকে বাড়াতে কমাতে পারবেন আপনার চাহিদা অনুযায়ী।

ডাউনলোড এবং ব্যবহার

অ্যাপ্লিকেশনটি রিলিজ হওয়ার প্রথমদিকে এটা প্লে-স্টোরে পাওয়া গেলেও বর্তমানে এটাকে আর প্লে-স্টোরে পাওয়া যায় না। কে জানে ইউটিউব তথা গুগল এর চতুর কাজকর্মের জন্য এটাকে সরিয়ে দিয়েছে কিনা। কিন্তু এটা প্লে-স্টোরে না থাকলেও সমস্যা নেই। আমার ফোনে এটা আমি নিয়মিত ব্যবহার করি। সো শেয়ার করতে তো কোন সমস্যা নেই। নিচের ডাউনলোড লিঙ্ক থেকে ঝটপট অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে নিন।

ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে অথবা এখানে | সাইজ মাত্র ৩.৫৪ মেগাবাইট

ডাউনলোড শেষে আপনার জিমেইল একাউন্ট ব্যবহার করে কিংবা জিমেইল একাউন্ট ছাড়াই অ্যাপ্লিকেশনটা ব্যবহার করতে পারবেন। যেকোন ভিডিও প্লে করা মাত্রই এটি মিনিফাইড স্ক্রিনে প্রদর্শিত হবে। আপনি চাইলে এটাকে বড় করেও দেখতে পারেন বা এটি মিনিফাইড অবস্থায় রেখে অন্য কাজও করতে পারবেন। সব কিছুই আপনাদের মর্জি।

অ্যান্ড্রোয়েড এর অডিও/ভিডিও ডাউনলোড করার সেরা অ্যাপ্লিকেশন

টিউনের আকারটা খুবই ছোট হয়ে গিয়ে ছিলো তাই আপনাদের জন্য আমার অভিজ্ঞতালব্ধ সেরা একটা অডিও/ভিডিও ডাউনলোডার শেয়ার করছি। এটা যেকোন ওয়েব সাইট থেকে অডিও/ভিডিও ডাউনলোড করতে পারে। যে ওয়েব থেকে থেকে আপনি ভিডিও ডাউনলোড করতে চান কেবল সেগুলো অ্যাপ্লিকেশনটিতে সেট করে নিলেই কেল্লাফতে। অসাধারণ এই অ্যাপটির নাম SnapTube.

এই অ্যাপটি ব্যবহার করেছেন কিনা জানিনা তবে ব্যবহার করে থাকলে বলতে পারবেন এটা কতোটা কাজের একটি অ্যাপ্লিকেশন। ফ্লাই টিউবের মতোই এই অসাধারণ অ্যাপ্লিকেশনটিও আপনি প্লে-স্টোরে পাবেন না। কিন্তু চিন্তার কিছু নেই, নিচের লিঙ্কে থাকা অ্যাপটির অফিশিয়াল লিঙ্ক থেকে এটি নামিয়ে নিন সম্পূর্ণ ফ্রিতে। তবে ব্যবহার শেষে জানাতে ভুলবেন না যেন অ্যাপ্লিকেশন দুটি কেমন লাগলো।

স্ন্যাপটিউব – বিস্তারিত তথ্য ও ডাউনলোড | অফিশিয়াল লিঙ্ক

শেষ কথা

টিউনটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে অথবা বুঝতে যদি কোন রকম সমস্যা হয় তাহলে আমাকে  ভুলবেন না। সর্বশেষ যে কথাটি বলবো, আসুন আমরা কপি পেস্ট করা বর্জন করি এবং অপরকেও কপি পেস্ট করতে নিরুৎসাহিত করি। সবার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি।

Please comment Here (ভাল লাগলে কমেন্ট করুন)